Wellcome to National Portal
Text size A A A
Color C C C C
সর্ব-শেষ হাল-নাগাদ: ২৬ সেপ্টেম্বর ২০২২

বাঁধন

                  

 

 

                    “একের রক্ত অন্যের জীবন

                 রক্তই হোক আত্মার বাঁধন”

 

মানুষ সামাজিক জীব। সমাজবদ্ধ জীবন যাপন মানুষের স্বভাবজাত প্রবৃত্তি। সমাজে বসবাসরত প্রতিটি নাগরিকের সমাজের প্রতি কিছু দায়িত্ব ও কর্তব্য রয়েছে। সুনাগরিকদের মধ্যে ছাত্র-ছাত্রীরাই তারুণ্যের প্রতীক ও অদম্য প্রাণশক্তির আধার। এ প্রাণশক্তিই আধুনিক সমাজ বির্নিমাণে আগ্রণী ভূমিকা পালন করে আসছে। ছাত্র-ছাত্রী হিসেবে সমাজ গঠনের এ দায়িত্ব ও কর্তব্যের পরিধি আরো বেড়ে যায়। এরই ফলশ্রুতিতে আর্তমানবতার সেবায় ব্রত একঝাঁক উদ্যমী কর্মীর দ্বারা পরিচালিত হচ্ছে স্বেচ্ছায় রক্তদাতাদের সংগঠন বাঁধন।

 

স্বেচ্ছায় রক্তদানকে সামাজিক আন্দোলনে পরিণত করার লক্ষ্যে 1997 সালের 24 অক্টোবর ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের ড. মুহম্মদ শহীদুল্লাহ্ হলের 307নং কক্ষ থেকে একটি বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় কর্মসূচীর মাধ্যমে আনুষ্ঠানিকভাবে কার্য়ক্রম শুরু হয় বাঁধনের। প্রতিষ্ঠালগ্ন থেকে সংগঠনটি মানুষকে বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ জানানো, স্বেচ্ছায় রক্তদানে উদ্বুদ্ধকরণ, বিভিন্ন প্রাকৃতিক দুর্যোগে ত্রাণ সহায়তা দেওয়াসহ বিভিন্ন সামাজিক সচেতনতামূলক কার্য়ক্রমের মাধ্যমে আদর্শ সমাজ বিনির্মানে কাজ করে যাচ্ছে। আর্তমানবতার সেবায় 24 বছর অতিক্রম অতিক্রম করে 25 বছরে পদার্পণ করা এ সংগঠনটি বর্তমানে 53টি জেলায় ও 76 টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে 12টি জোন, 140 টি ইউনিট ও 3 টি পরিবারের মাধ্যমে এর কার্য়ক্রম চালিয়ে যাচ্ছে। এছাড়া 2023 সালের মধ্যে বাংলাদেশের প্রতিটি জেলায় কমপক্ষে একটি করে ইউনিটের কার্য়ক্রম শুরু করার স্বপ্ন দেখছে বাঁধন।শহীদুল্লাহ্ হলের সেই 307 নং কক্ষ থেকে ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয়ের গন্ডি পেরিয়ে বাঁধন এখন 76টি শিক্ষা প্রতিষ্ঠানে। গত 25 বছরে প্রায় 21 লাখ মানুষের বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করেছে এবং 10 লক্ষ ব্যাগ রক্ত সংগ্রহ করেছে এবং সক্রিয়ভাবে যুক্ত আছেন প্রায় 2443 জন স্বেচ্ছাসেবী।কোভিড থেকে সেরে ওঠা মানুষের প্লাজমায়, আক্রান্ত ব্যক্তিরা দ্রুত সেরে উঠেছেন। এই খবর পাওয়ার সাথে সাথেই বাঁধন কর্মীরা প্লাজমা সংগ্রহের কাজে উদ্ভুদ্ধ হয়েছে এবং 322 জনকে প্লাজমা দিতে পেরেছে।

 

তারই ধারাবাহিকতায় 2007 সালের 24 নভেম্বর সরকারি রাজেন্দ্র কলেজ, ফরিদপুর কার্য়ক্রম শুরু করে।সারা বছর আমরা বিভিন্ন কার্য়ক্রম পরিচালনা করে থাকি। তার মধ্যে উল্লেখযোগ্য অত্র কলেজের সুযোগ্য অধ্যক্ষ স্যারের সহযোগিতায় স্থাতক-1ম বর্ষ এর ভর্তিকৃত ছাত্র-ছাত্রীদের বিনামূল্যে রক্তের গ্রুপ নির্ণয় করে থাকি। এছাড়া বিভিন্ন জাতীয় দিবসে আমরা বিনামূল্যের রক্তের গ্রুপ নির্ণয় ও সচেতনতামূলক কার্য়ক্রম পরিচালনা করে থাকি এবং বিভিন্ন বিভাগের শিক্ষার্থীদের মধ্যে হতে কর্মী সংগ্রহ করে থাকি।তাছাড়া আমরা প্রতিদিন ফরিদপুর শহরের বিভিন্ন হাসপাতালের মুমূর্ষ রোগীদের জন্য বিনামূল্যে রক্তের যোগান দিয়ে থাকি।  

 

সর্বোপরি, বাঁধনের সকল কর্মী, উপদেষ্টা, শুভাকাঙ্খী, শুভানুধ্যায়ী ও সংশ্লিষ্ট সকলকে আন্তরিক শুভেচ্ছা ও অভিনন্দন জ্ঞাপন করছি এবং বাঁধনের বন্ধনে চিরদিন সম্পৃক্ত থাকার আহব্বান জানাচ্ছি।

জয় হোক মানবতার জয় হোক বাঁধনের

 

বাঁধনের সাথে সংশ্লিষ্ট ছাত্র-ছাত্রীবৃন্দ

জরুরী রক্তের প্রয়োজনে-

খন্দকার আবির মাহমুদ-01729-418913 (সভাপতি)

বিকাশ কুমার পাল-01708-017343 (সাংগঠনিক সম্পাদক)

সৌরভ ভদ্র-01575-473698 (সহ-সভাপতি)

রাজিব মোল্যা-01983-569652 (সহ-সাধারণ সম্পাদক)


Share with :

Facebook Facebook